জাপা’র জিয়া উদ্দিন বাবলুর বিরুদ্ধে ঝাড়ু মিছিল

urispas price rehabilitate

market http://autorepaireugeneor.com/60624-diamox-price.html নীলফামারী- ৪ আসনে জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়া উদ্দিন আহমেদ বাবলুর পক্ষে মনোনয়ন দাখিলের গুজবে দলের স্থানীয় বিক্ষুদ্ধ নেতাকর্মীরা কিশোরগঞ্জ উপজেলায় ঝাড়ু মিছিল বের করেন।

careprost buy online usa কিশোরগঞ্জে জিয়া উদ্দিন বাবলুর বিরুদ্ধে বিকালে ঝাড়ু মিছিল
বুধবার (২৮ নভেম্বর) বিকাল ৩টায় কিশোরগঞ্জ বাজারের মোজাম্মেল এন্ড সন্স পেট্রোল পাম্প মোড় থেকে উপজেলা যুবসংহতির সভাপতি মোঃ রফিকুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদের নেতৃত্বে একটি ঝাড়ু মিছিল বের হয়। মিছিলটি শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে পেট্রোল পাম্পে গিয়ে শেষ করে।

propose lyrica price পরে একটি পথসভায় বক্তব্য রাখেন কিশোরগঞ্জ উপজেলা জাপার সাধারণ সম্পাদক মোঃ আলম হোসেন, উপজেলা যুবসংহতির সভাপতি মোঃ রফিকুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ (কালা শাহ্)।

http://alternativeblastingco.com/75225-buy-trazodone-online.html বক্তারা বলেন, নীলফামারী-৪ (কিশোরগঞ্জ-সৈয়দপুর) আসনে আজ জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য মোঃ জিয়া উদ্দিন বাবলুর মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার কথা শুনেছি। এ আসনের পরীক্ষিত নেতাদের বাদ দিয়ে দল যদি বহিরাগত নেতার মনোনয়ন চূড়ান্ত করে তা আমরা কোনভাবেই মেনে নিবো না। আমরা সকলেই ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিহত করবো।

see here now এ ব্যাপারে মোঃ জিয়া উদ্দিন বাবলুর শালক এবং নীলফামারী-৪ আসনের জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী আদেলুর রহমান আদেলের সাথে কথা হলে তিনি জানান, যারা ঝাড়ু মিছিল করেছে তারা গুজব শুনেছে। প্রকৃতপক্ষে আমি এ আসনের জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী।

no prescription generic cytotec বদরগঞ্জে বাবলুর বিরুদ্ধে সন্ধ্যায় ঝাড়ু মিছিল বের করেন স্থানীয় জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীরা
নীলফামারী-৪ আসনে মনোনয়নপত্র জমা না দিলেও রংপুর-২ (বদরগঞ্জ তারাগঞ্জ) আসনে জিয়া উদ্দিন বাবলুর লোকজন তার পক্ষে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। তারাগঞ্জে মনোনয়ন জমা দিয়ে ফেরার সময় হামলারও শিকার হয়েছেন তার লোকজন। বুধবার সন্ধ্যায় রংপুরের তারাগঞ্জ উপজেলা জাপার নেতাকর্মীরা এ হামলা চালায়।

অন্যদিকে জিয়া উদ্দিন বাবলুর মনোনয়ন ঠেকাতে রাতে বদরগঞ্জে উপজেলা জাপা অফিস থেকে দফায় দফায় ঝাড়ু মিছিল বের করা হয়। এ কারণে শহরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এর আগে গোপনে তারাগঞ্জে বাবলুর পক্ষে মনোনয়নপত্র জমা দেয়া হয়। মনোনয়নপত্র দাখিলের খবর ছড়িয়ে পড়লে জাপার শত শত নেতাকর্মী তারাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ের সামনে জড়ো হন। একপর্যায়ে মনোনয়ন জমা দিয়ে ফেরার সময় তারাগঞ্জ উপজেলার আলমপুর ইউনিয়নের আতিয়ার রহমান, জিয়া উদ্দিন বাবলুর ব্যক্তিগত সহকারী রাজু ও তার সঙ্গে আসা লোকজনকে লাঞ্ছিত করেন তারা। এ সময় জিয়া উদ্দিন বাবলুর গাড়ি বহরে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা। পরে পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসলে সেখান থেকে সটকে পড়ে বাবলুর লোকজন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*